টাঙ্গাইলে শিশু ধর্ষণকারী আটক

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের মধুপুরে পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক সহিদুল ইসলাম (২০) কে আটক করেছে পুলিশ। আজ বুধবার (৮ মে) দুপুরে ঘাটাইল উপজেলার পাকুটিয়া এলাকা থেকে তাকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ এসে সহিদুলকে আটক করে নিয়ে যায়।

ধর্ষক সহিদুল ইসলাম মধুপুর উপজেলার বেকারকোণা এলাকার জনৈক শাহজাহান আলী ওরফে ইয়াজউদ্দিন দর্জির ছেলে। বখাটে সহিদুল কোন কাজকর্ম করে না এবং মাদকাসক্ত হয়ে নানা অপকর্ম করে বেড়ায় বলে জানা গেছে।  ধর্ষণের স্বীকার শিশুটি স্থানীয় একটি কিন্ডার গার্টেনের নার্সারির শিক্ষার্থী।

জানা যায়, গত শনিবার (৪ মে) দুপুরে ফনীর প্রভাবে বৃষ্টিপাতের সময় মধুপুর উপজেলার আলোকদিয়া ইউনিয়নের বেকারকোণা গ্রামের সহিদুল প্রতিবেশি ওই শিশুটিকে খাওয়ার লোভ দেখিয়ে পাশে নির্মাণাধীন একটি পাকা বাড়িতে নিয়ে যায়। ওখানে নিয়ে সে শিশুটির উপর পাশবিক নির্যাতন করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। শিশুটির কান্নার শব্দে প্রতিবেশী ও পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যায়। লুকিয়ে তাকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। এ ঘটনায় মধুপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

এ বিষয়ে ঘাটাইল থানার এসআই আবু হানিফ কে জানান, মধুপুরে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে উপজেলার বেকারকোনা এলাকার বখাটে শহিদুলকে ঘাটাইলের পাকুটিয়া এলাকা থেকে মধুপুর থানার এসআই আবু হান্নান আটক করে মধুপুর থানায় নিয়ে যান। ঘাটাইল থানা পুলিশ মধুপুর থানা পুলিশকে সে সময় সার্বিক সহযোগিতা করে।

মধুপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সফিকুল ইসলাম জানান, আটককৃত সহিদুলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.