ব্রেকিং নিউজ

সখীপুরে সহপাঠির বিরুদ্ধে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ

এম সাইফুল ইসলাম শাফলু: টাঙ্গাইলের সখীপুরে সহপাঠীর বিরুদ্ধে এক তরুণীকে (১৫) দুইদিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠেছে। উপজেলার দাড়িয়াপুর ইউনিয়নের দেওবাড়ি চাকলাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে একই গ্রামের জিন্নাহ মিয়ার ছেলে সহপাঠী সুমন আহমেদ (১৬)সহ চারজনকে আসামি করে মামলা করেছেন ওই তরুণীর মামা।

মামলা সূত্রে জানা যায়, এসএসসি পরীক্ষায় কৃতকার্য হওয়ার পর গত ৬ মে ওই তরুণী তার মামার বাড়ি উপজেলার বহেড়াতৈল গ্রামে বেড়াতে যান। ৭মে ভোরবেলা ওই তরুণীকে ওই বাড়ির পাশ থেকে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায় সহপাঠী সুমন ও তার লোকজন। গত দুইদিন খোঁজাখুজির পর ৯ মে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টার দিকে মোবাইল ফোনের সূত্রধরে সখীপুর পৌর এলাকা থেকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

এ সময় মেয়েটি তার সহপাঠী সুমনের বিরুদ্ধে অপহরণের পর তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের বিষয়টি জানায়। পরে তার মামা বাদী হয়ে সহপাঠী সুমনসহ চারজনকে আসামি করে সখীপুর থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। মামলার বাদী দোষীদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেন।

সখীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মজিবর রহমান নিউজ টাঙ্গাইলকে জানান- মেয়েটিকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ধর্ষক সুমনসহ অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.