সখীপুরে বাড়িতে এক নারীর মৃত্যু নিয়ে সন্দেহ

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের সখীপুরে জোসনা আক্তার (৪৫) নামের এক নারীর সন্দেহজনক মৃত্যু হয়েছে। গত শনিবার রাতে উপজেলার হাতীবান্ধা গ্রামের পূর্ব পাড়ায় ঘটনাটি ঘটেছে। তিনি গ্রামের সেলিম খানের স্ত্রী। এ ব্যাপারে জোসনার বড় ছেলে সোহেল খান বাদী হয়ে সখীপুর থানায় অপমৃত্যুর মামলা করেছেন।

পুলিশ রোববার দুপুরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। সোহেল খান জানান, তার মা ও বাবা একসঙ্গে রাতের খাবার খেয়ে আনুমানিক ১১টার দিকে ঘুমিয়ে পড়ে। সেহরি রান্নার জন্য তার বাবা রাত দুইটার দিকে মাকে ডাক দিলেন। মায়ের কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে তার বাবা কান্নাকাটি শুরু করে দেন। একপর্যায়ে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতি নেন। কিন্তু অটো ভ্যানে উঠানোর আগেই তার মা মারা যান।

সোহেল খান বলেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তাঁর মায়ের মৃত্যু হয়েছে, এ চিন্তা থেকে রােববার বেলা ১১টার দিকে তাকে দাফনের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া হয়। ইতিমধ্যে বাড়িতে পুলিশ গিয়ে হাজির হয় এবং তাঁদের মা খুন হয়েছেন বলে জানায়।

সখীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শামসুল হক জানান, সকালের দিকে ওই গ্রাম থেকে কে বা কারা পুলিশের প্রধান কার্যালয়ে ৯৯৯ নম্বরে ফোনে জানায় যে ওই নারী খুন হয়েছেন। খুনের বিষয়টি ধামাচাপা দিতে পারিবারিকভাবে দাফনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু প্রধান কার্যালয়ের তথ্য পেয়ে ওই গ্রামে গিয়ে লাশের সুরতহাল দেখে ও এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে হত্যাকাণ্ডের সত্যতা পাওয়া যায়নি। মনে হয়েছে ওই নারীর স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। তারপরও সন্দেহ দূর করতে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.