সখীপুরে সরকারি হালট বন্ধ করে বসতবাড়ি; এলাকাবাসীর চলাচলে চরম দুর্ভোগ

এম সাইফুল ইসলাম শাফলু: টাঙ্গাইলের সখীপুরে কালিদাস গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে হাসমত আলী ও আতা মিয়া এবং শাহজাহানের ছেলে লাভলু ও বাবুল মিয়ার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের চলাচলকারী সরকারি হালট (সড়ক) দখল করে পরপর চারটি বসতবাড়ী নির্মাণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয়ভাবে বার বার শালিশী বৈঠক করে এর কোন সুরাহা করতে পারেনি মাতাব্বররা। এতে দখল হয়ে যাওয়া ওই হালট দিয়ে চলাচলকারী এলাকাবাসী পড়েছেন চরম দুর্ভোগে। দখল হওয়া হালটটি দখল মুক্ত করতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বরাবর ভূক্তভোগীদের পক্ষে লিখিত অভিযোগ করেছেন দুলজান বেগম।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শতবছর ধরে চলাচলকারী কালিদাস মৌজার এসএ ১নং খতিয়ানের ১৫৬ নং দাগের সরকারি হালটটি (সড়কটি) স্থানীয়দের বাধাঁ উপেক্ষা করে ওই গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে প্রভাবশালী হাসমত আলী ও আতা মিয়া এবং শাহজাহানের ছেলে লাভলু ও বাবুল মিয়া জোরপূর্বক পরপর চারটি বসতবাড়ি নির্মাণ করে চলাচলকারী রাস্তা একেবারেই বন্ধ করে দিয়েছে। এতে করে ওই হালটদিয়ে চলাচলকারী অর্ধ শতাধিক পরিবার চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। ওই হালট দখলমুক্ত করতে ভুক্তভোগীদের পক্ষে স্থানীয় আজাহার আলীর স্ত্রী দুলজান বেগম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন।

ওই হালট দিয়ে চলাচলকারী মো. আবুল হোসেন (৭৫) এবং আজাহার আলী (৬০) বলেন-আমাদের বাপ-দাদাদের আমল থেকে ওই হালট দিয়ে চলাচল করে আসছি। চলাচলকারী একমাত্র হালট যারা দখল করে বাড়ি করেছেন তাদের উচ্ছেদ করার দাবি জানান তারা।

এ ব্যাপারে ৮নং বহুরিয়া ইউনিয়েনর চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সেলিম লিখিত অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন-বিষয়টি নিস্পত্তির জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্যকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়শা জান্নাত তাহেরা বলেন- দখলদারদের উচ্ছেদপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.