ব্রেকিং নিউজ :

টাঙ্গাইলে কিশোর মিলনের চোখ নষ্ট করা মামলায় দুই আসামি গ্রেপ্তার

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কিশোর মিলনের চোখ নষ্ট করা মামলার দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার দুপুরে দেওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. রফিকের নেতৃত্বে পুলিশ উপজেলার গোড়াই এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো উপজেলার গোড়াই রাজাবাড়ি বানিয়াচালা গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে মামুন (২৩) ও মাজেদ দেওয়ানের ছেলে আল আমিন (২০)।

জানা গেছে, মিলনের বাবা গিয়াস কারখানার শ্রমিক। একমাত্র ছেলে মিলন চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশুনা করেছে। তার ছোট চাচা মজিবর রহমানের ছেলে মামুন ডিস সংযোগের কাজ করে। গত ১২ এপ্রিল বিকেলে মামুন ফোন করে কাজের জন্য মিলনকে ডেকে নেন। পরে মামুন মিলনের বাবা গিয়াস উদ্দিনকে ফোনে জানান কাজ করার সময় মিলন ছাদ থেকে পড়ে আহত হয়েছে। তাকে কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর শুনে পরিবারের লোকজন হাসপাতালে ছুটে যান। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য মিলনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান তারা। ১৯ দিন চিকিৎসা শেষে ১ মে তার জ্ঞান ফেরে।

মিলন জানায়, ঘটনার দিন তাদের সঙ্গে পাশের বাড়ির আলআমিনও ছিলেন। তিনজন মিলে গোড়াই গ্রামের আনিস মুন্সির বাসায় ডিস সংযোগের কাজ করতে যান। সেখানে মামুনের কাছে মিলন মজুরি চাইলে তাদের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায় মামুনের হাতে থাকা টেস্টার দিয়ে মিলনের ডান চোখে সজোরে আঘাত করেন। পরে তার বা চোখেও আঘাত করা হয়।

এ ঘটনায় মিলনের মা জাহানারা বেগম ৯ মে টাঙ্গাইলের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে তিনজনকে আসামি করে মামলা করেন।

দেওহাটা ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ পরিদর্শক মো. রফিক জানান, এজাহারভুক্ত তিন আসামির মধ্যে দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপরজনকেও গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.