ব্রেকিং নিউজ

মির্জাপুরে দোকানীর পিটুনিতে আহত চার

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে জুতা বদলিয়ে চাওয়ায় ক্রেতা ও তার মা-বোনসহ চার জনকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে ও মারপিট করে আহত করেছে দোকানী। বুধবার (২৯ মে) দুপুরে মির্জাপুর বাজারের মসজিদ মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় সুজন সু স্টোরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৩ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৬/৭ জনের নামে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ক্রেতা। আহত ক্রেতা রুবেল মির্জাপুর পৌর এলাকার বাওয়ার কুমারজানী গ্রামের কবির মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, বুধবার সকালে রুবেল মসজিদ মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত সুজন সু স্টোর থেকে ১৫শ টাকা দিয়ে নিজের জন্য একজোড়া জুতা কিনেন। পরে পাশে প্যান্টের দোকানে গিয়ে প্যান্ট কেনার পর জুতা ও প্যান্ট পড়ে দেখতে গেলে জুতা ছেঁড়া দেখতে পান রুবেল। সঙ্গে সঙ্গে পরিবর্তনের জন্য জুতা নিয়ে আসলে দোকান মালিক সুজন খান তা পরিবর্তন করে দিতে অস্বীকৃতি জানায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে দোকান মালিক সুজন, সাগর ও আলামিনসহ কর্মচারীরা মিলে রুবেলকে বেধড়ক মারপিট করতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা তাকে পাশে গুডাউনে নিয়ে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটাতে থাকে।

এ ঘটনা দেখে রুবেলে মা রুলিয়া বেগম, খালাতো বোন বিলকিছ ও মামাতো ভাই ইয়ামিন এগিয়ে গেলে তারা তাদেরকেও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগে উল্লেখ করেছেন।

এ ঘটনায় রুবেল সুজন সু স্টোরের মালিক সুজন খান, সাগর ও আলামিনের নামসহ অজ্ঞাত ৬/৭ জনের নামে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ ব্যাপারে সুজন সু স্টোরের মালিক সুজন খানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি তবে অভিযুক্ত সাগর জানান, তিনি পাশের দোকানদার।

এ ঘটনার সময় তিনি মারপিট ফেরাতে গিয়েছিলেন। মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক রিপন নাগ অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.