নিজের অপহরণের নাটক সাজিয়ে বাবা-মায়ের কাছে মুক্তিপণ দাবি

নিউজ ডেস্ক: পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার হেলাল (১৭) নামে এক কিশোর নিজের অপহরণের নাটক সাজিয়ে বাবা-মায়ের কাছে মুক্তিপণ দাবি করে। ঘটনার দুইদিন পর শনিবার রাতে মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে চট্টগ্রাম ইপিজেড এলাকার একটি বিকাশ এজেন্টের দোকান থেকে তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম ইপিজেড থানা পুলিশ।

উদ্ধার কিশোর পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার পাড়েরহাট ইউনিয়নের টগড়া গ্রামের শহীদুল ইসলামের ছেলে। এ বিষয়ে তার মা হাওয়া বেগম বাদী হয়ে শনিবার ইন্দুরকানী থানায় জিডি করেন।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ঈদের পরদিন ইন্দুরকানী ব্রিজে ওই কিশোরের ছোট বোন ঘুরতে গেলে হেলাল তাকে মারধর করে। পরে তার মা-বাবা তাকে বকা দিলে শুক্রবার সকালে হেলাল বাড়ি থেকে চট্টগ্রাম চলে যায় এবং অপহরণের নাটক সাজিয়ে একটি মোবাইল নম্বর থেকে দেড়লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ সময় সে চট্টগ্রাম ইপিজেড এলাকার একটি বিকাশ নম্বর দিয়ে টাকা পাঠাতে বলে।

ইন্দুরকানী থানা পুলিশ বিকাশ এজেন্টের নম্বর নিশ্চিত হয়ে চট্টগ্রাম ইপিজেড থানাকে জানায়। ওই বিকাশ এজেন্টের দোকানে হেলাল টাকা নিতে গেলে পুলিশ শনিবার রাতে তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম ইপিজেড থানায় নিয়ে যায়। সংবাদ পেয়ে রোববার সকালে ইন্দুরকানী থানার উপ-পদির্শক আলমগীর হোসেনের নেতৃতে একদল পুলিশ হেলালকে আনতে চট্টগ্রামে রওনা হয়েছে।

এ বিষয় ইন্দুরকানী থানার উপ-পরিদর্শক জাকির হোসেন জানান, হেলাল বাবা-মার সঙ্গে ঝগড়া করে নিজে আত্মগোপন করে অপহরণের নাটক সাজিয়েছে। তাকে মোবইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে শনিবার রাতে চট্টগ্রাম ইপিজেড থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আজ সকালে ইন্দুরকানী থানা থেকে তাকে আনার জন্য পুলিশের একটি দল চট্টগ্রামে গেছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.