টাঙ্গাই‌লে ধর্ষ‌ণের পর চিকিংসাধীন অবস্থায় মারা গেল শিশু‌ আছিয়া

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক : টাঙ্গাই‌লের কা‌লিহাতী‌তে ধর্ষ‌ণের এক বছর পর চি‌কিৎসাধীন অবস্থায় মারা গে‌ছে শিশু আ‌ছিয়া (৮) না‌মের এক শিশু।

সোমবার ভোর রা‌তে শিশুটি ঢাকায় আত্মীয়ের বাসায় মৃত্যু বরণ ক‌রে। এর আগে গত বছ‌রের ৯জুন শিশু‌টি‌কে ধর্ষণ ক‌রে উপ‌জেলার মালতী গ্রা‌মের তা‌য়েজ আলীর বখা‌টে ছে‌লে মাহবুব (১৮) না‌মের এক যুবক।

জানা গে‌ছে, গত বছর ৯জুন ধর্ষক মাহবুব বি‌ভিন্ন প্র‌লোভন দে‌খি‌য়ে আছিয়াকে ডে‌কে তা‌দের বা‌ড়ি‌তে নি‌য়ে যায়। প‌রে এক‌টি ঘ‌রে নি‌য়ে তা‌কে ধর্ষণ ক‌রে। এতে সে গুরুত্বর অসুস্থ্য হ‌য়ে পড়‌লে টাঙ্গাইল সদর হাসপাতা‌লে ভ‌র্তি করা হয়।

পরে চি‌কিৎসক ধর্ষ‌ণের বিষয়টি শিশুটির প‌রিবার‌কে জানালে শিশুটির বাবা আশরাফ আলী বাদী হ‌য়ে একই গ্রা‌মের তা‌য়েজ আলীর ছে‌লেকে আসামী ক‌রে ধর্ষণ মামলা দা‌য়ের ক‌রেন।

এর আগে ধর্ষ‌ণের ঘটনা ধামাচাপা দি‌তে স্থানীয় প্রভাবশালীরা চাপ সৃ‌ষ্টি ক‌রে ব‌লে অ‌ভি‌যোগ ক‌রে‌ছেন শিশুটির প‌রিবার। প‌রে পু‌লিশ ধর্ষক মাহবুব‌কে গ্রেপ্তার ক‌রে কো‌র্টে প্রেরণ ক‌রে। এর কিছু‌দিন পর আসামী জা‌মি‌নে বের হ‌য়ে আসে।

‌শিশু‌ আছিয়ার নানা হযরত আলী খান ব‌লেন, ঢাকায় এক আত্মী‌য়ের বাসায় রেখে আছিয়াকে চিকিংসা করানো হচ্ছিলো। সোমবার ভোর রা‌তে আছিয়া ব্যাথা অনুভব ক‌রে ছটফট কর‌তে থা‌কে।

প‌রে হাসপাতা‌লে নেয়ার সু‌যোগ পাইনি তার আগেই সে মারা যায়। দুপু‌রের দি‌কে তা‌কে কালিহাতী উপ‌জেলার মালতী গ্রা‌মের বা‌ড়িতে আনা হয়। এরপর তার দাফ‌নের ব্যবস্থা করা হয় ।

টাঙ্গাইল জেনা‌রেল হাসপাতা‌লের অন‌স্টোপ ক্রাইসিস সেন্টারের প্রোগ্রাম অফিসার (পিও) মো: বাইজেদ জানান, সে সময় ধর্ষ‌ণের ফ‌লে তার ব্যাপক রক্তক্ষরণ হয়। এতে মলদার ও জনন অ‌ঙ্গ (যৌনা‌ঙ্গে) ছি‌ড়ে গি‌য়ে এক হ‌য়ে যায়।

এতে আট‌টি সেলাই করার পরও তার শারী‌রিক অবস্থা অবন‌তি হওয়ায় ওই সময় তা‌কে ঢাকা মে‌ডি‌কেল হাসপাতা‌লে পাঠা‌নো হয়। অবস্থার অবন‌তি না হওয়ায় এক বছর ঢাকায় অবস্থান ক‌রে চি‌কিৎসা নি‌চ্ছিল শিশু‌টি।

কা‌লিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ মীর মোশারফ হো‌সেন ব‌লেন, ধর্ষ‌ণের ঘটনায় সেই সময় ধর্ষক মাহবুব‌কে গ্রেপ্তার ক‌রে কো‌র্টে প্রেরণ করা হ‌য়ে‌ছিল। পু‌লি‌শের প‌ক্ষ থে‌কে আদাল‌তে চার্জশ‌ীট দেয়া হ‌য়ে‌ছে। বর্তমা‌নে মামলা‌টি বিচারাধীন র‌য়ে‌ছে।

One comment

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.