ব্রেকিং নিউজ

ভূঞাপুরে গৃহবধুকে ধর্ষণে ধর্ষক আটক

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে বখাটে মনিরুজ্জামান রনি (২৪) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। বখাটে মনিরুজ্জামান রনি উপজেলার কুতুবপুর গ্রামের ওয়াজেদ আলীর ছেলে।

বুধবার (১৯ জুন) রাত ১১ টার দিকে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ধর্ষণের বিষয়ে বৃহস্পতিবার (২০ জুন) বিকেলে সত্যতা নিশ্চিত করেছে ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রাশিদুল ইসলাম।

এ ঘটনায় ভূঞাপুর থানার মামলা সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের বখাটে প্রতিবেশী মুনিরুজ্জামান রনি গত এক মাস আগে থেকে ওই গৃহবধুর স্বামী ঢাকার একটি গার্মেন্টে চাকুরি করার সুবাদে তাকে নানা সময়ে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল।

এ কুপ্রস্তাব ও অনৈতিক কাজে রাজি না হওয়ার গৃহবধুর ওপর ক্ষুদ্ধ হয়ে লম্পট রনি গত বুধবার রাতে কৌশলে ঘরের ভিতর প্রবেশ করে গামছা দিয়ে মুখ চেপে ধরে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় গৃহবধুর শিশু সন্তান ও ধর্ষিতার ডাক-চিৎকার করলে আশে পাশের লোক গৃহবধু উদ্ধার করে। সেই সাথে লম্পট ধর্ষকে স্থানীয় জনতা হাতে-নাতে ধরে গণধোলাই বেঁধে আটকে রাখে।

পরদিন বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষকে থানায় নিয়ে আসে। ধর্ষককে পুলিশ নিয়ে আসার পরপরই বৃহস্পতিবার (২০ জুন) সকালেই ধর্ষিতা গৃহবধু বাদী হয়ে ভূঞাপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন ধর্ষক রনির বিরুদ্ধে।

ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রাশিদুল ইসলাম জানান, এ ধর্ষণের ব্যাপারে সকালে পুলিশ পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ধর্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে এসে প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে। অন্যদিকে ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই গৃহবধুকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট্য জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং লম্পট ধর্ষককে টাঙ্গাইল জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.