সখীপুরে ছয়মাসের অন্তসত্ত্বা কিশোরী; মামাতো ভাই গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের সখীপুরে এক কিশোরী (১৪) ছয়মাসের অন্তসত্ত্বা হয়েছেন। শনিবার বিকেলে সখীপুরের একটি ক্লিনিকে আলট্রাসনোগ্রামের প্রতিবেদনে এ তথ্যের সত্যতা পাওয়া গেছে। পরে সন্ধ্যে ছয়টায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে কিশোরীর মামাতো ভাই পারভেজ আহমেদকে (১৬) আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। পরে পুলিশ মামাতো ভাইকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

কিশোরীর মা জানায়, মেয়েটি নানির বাড়িতে থেকে কলা বাগানে শ্রমিকের কাজ করে। মাস ছয়েক আগে দশম শ্রেণিতে পড়–য়া মামাতো ভাই পারভেজ বাড়িতে একা পেয়ে দিনদুপুরে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। বিষয়টি কাউকে বললে মেরে ফেলার হুমকি দেয় পারভেজ। তিন মাস পর থেকে মেয়েটি শরীরে পরিবর্তন বুঝতে পারলেও লজ্জা ও ভয়ে কাউকে কিছু বলেননি। এক সপ্তাহ আগে শরীরে বড় রকমের পরিবর্তন দেখা দিলে মায়ের কাছে সব কিছু খুলে বলে। এ বিষয় নিয়ে এলাকায় গোপনে সালিসি বৈঠক হলেও কোনো মীমাংসা না হওয়ায় মেয়ের মা আল্ট্রা প্রতিবেদন সহকারে শনিবার সন্ধ্যায় সখীপুর থানায় মামলা করেন।

মেয়ের মা বলেন, মেয়েটি নানির বাড়িতে থাকার কারণে ওর খোঁজ খবর বেশি একটা নিতে পারিনি। এ কারণেই আমার বিষয়টা বুঝতে দেরি হয়েছে।

দশম শ্রেণির ছাত্র পারভেজ আহমেদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) কাছে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে এ বিষয়ে ডিএনএ টেস্ট করার অনুরোধ জানান।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন বলেন, মামলা হওয়ায় পারভেজ নামের এক আসামিকে প্রথমে আটক পরে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.