ভারতের বিরুদ্ধে বিশ্ব আদালতে মামলা করছে পাকিস্তান

কাশ্মীর ইস্যুটি আন্তর্জাতিক আদালতে তুলবে পাকিস্তান। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি মঙ্গলবার এই তথ্য জানিয়ে বলেছেন, ন্যায়বিচার পেতেই কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আন্তর্জাতিক আদালতে যাবে তার দেশ। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে মন্ত্রিসভায়।

পাকিস্তানের জাতীয় দৈনিক ডন-এর এক অনলাইন প্রতিবেদন অনুযায়ী শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেছেন, ‘কাশ্মীর মামলাটি আমার আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আইনি দিক বিবেচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিশেষ সহকারী ফিরদৌস আশিক আওয়ানও পৃথকভাবে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। দেশটির মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি (কাশ্মীর) আন্তর্জাতিক আদালতে তোলার বিষয়টি অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

গত পাঁচ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করে নরেন্দ্র মোদির সরকার। সংবিধানের ওই অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, স্বায়ত্বশাসন ও বিশেষ মর্যাদা পেত ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর। এছাড়া কাশ্মীরকে বাগ করে জম্মু ও কাশ্মীর নামে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার বিল পাস ভারতীয় পার্লামেন্টের উভয় কক্ষে।

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতের হাই কমিশনারকে বহিষ্কার করে ইসলামাবাদ। দিল্লিতে নিযুক্ত নিজেদের হাইকমিশনারকে ফিরিয়ে নেয়। এ ছাড়া কূটনৈতিক সম্পর্ক অবনমন এবং ভারতের সঙ্গে সব ধরনের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য স্থগিত ঘোষণা করে ইমরান খানের প্রশাসন। বিষয়টি নিয়ে সব ধরনের কূটনৈতিক তৎপরতা চালানোর ঘোষণা দেয় দেশটি।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.