ব্রেকিং নিউজ :

টেন্ডার ছাড়াই টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদের গাছ কাটার অভিযোগ

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও উপজেলা চেয়ারম্যানের নাম ভাঙ্গিয়ে টেন্ডার ছাড়াই টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদের দুটি গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। সাপ্তাহিক সরকারি বন্ধের দিন শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সদর উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকের দক্ষিণ পাশে লিচু গাছ ও শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) আম গাছ কাটা হয়। এ নিয়ে পরিবেশবাদি ও সচেতন মহলের মাঝে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকের দক্ষিণ পাশে ৫ জন শ্রমিক আম গাছের ডাল পিকাআপে তুলছে। কাছ কাটার বিষয়ে জানতে চাইলে রহিম নামের এক শ্রমিক টিনিউজকে বলেন, আমাদের গাছ কাটতে বলা হয়েছে। শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) লিচু গাছ কেটে এখান থেকে সরিয়ে ফেলেছি। আজকে শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) আম গাছ কেটেছি।

শ্রমিকদের সর্দার মোশারফ হোসেন বলেন, টাকার বিনিময়ে আমরা কাজ করি। গাছ কাটার বিষয়ে কোন অনুমতি আনা হয়েছে কিনা তা আমি বলতে পারবো না। তবে আমাদের এখানে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান আনছারীর কর্মী সাইফুল ইসলাম নিয়ে এসেছেন।

এ বিষয়ে সাইফুল ইসলাম বলেন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান আনছারী ও ইউএনও স্যার গাছ কাটার অনুমতি দিয়েছেন, তাই গাছ কাটা হয়েছে। বিশেষ করে উপজেলা পরিষদে গাড়ি প্রবেশের সময় গাছগুলো বাধা হয়ে দাঁড়ায়। তাই গাছগুলো কাটা হয়েছে। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউএনও স্যার গাছ কাটার অনুমতি দিয়েছেন।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান আনছারী বলেন, গাছ কাটার বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। আমি কাউকে গাছ কাটার কোন অনুমতি দেইনি।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতিকুল ইসলামের সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.