ব্রেকিং নিউজ

বাসাইলে এমপির অনুষ্ঠানে করোনা রোগী!

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের বাসাইলে কৃষকদের মাঝে সবজি বীজ বিতরণের আয়োজন করে কৃষি অফিস। গত বুধবার (২৪ জুন) দুপুরে উপজেলা হলরুমে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় এমপি অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম। এসময় করোনা পজিটিভ কৃষি অফিসের পিয়ন দুলাল হোসেন উপস্থিত হয়ে কোরআন তেলাওয়াত ও সবজি বীজ বিতরণে সহযোগিতা করেন। দুলাল নমুনা পরীক্ষা করতে দেওয়ার বিষয়টি গোপন রেখেই নিয়মিত অফিস করছিলেন। পরে বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) রাতে তার করোনা পজিটিভ আসে। শুক্রবার (২৬ জুন) দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফিরোজুর রহমান নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) দুপুরে উপজেলা কৃষি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে কৃষকদের প্রশিক্ষণে কৃষি অধিদপ্তরের ঢাকা অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ বিভূতি ভূষণ সরকার ও জেলা কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ইসমাইল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এরপর উপজেলা কৃষি অফিসে অতিথিদের মধ্যাহ্ন ভোজের কাজে করোনা আক্রান্ত রোগী দুলাল সহযোগিতা করেন।

জানা যায়, গত ১৬ জুন উপজেলা কৃষি অফিসের পিয়ন মো. দুলাল হোসেন করোনার উপসর্গ নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেয়। এরপর তিনি আইসোলেশনে না থেকে অফিসে নিয়মিত যাতায়াত করে আসছিলেন। এছাড়াও গত ২৪ জুন উপজেলা পরিষদ হলরুমে সবজি বীজ বিতরণে ও ২৫ জুন উপজেলা কৃষি অফিসে মধ্যাহ্ন ভোজের কাজে সহযোগিতা করেন। পরে নমুনা দেওয়ার ৯দিন পর বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) রাতে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। দুলালের করোনা পজিটিভের বিষয়টি জানাজানি হলে ওই দুইটি অনষ্ঠানে উপস্থিত নেতাকর্মী, অফিসার ও কৃষকদের মাঝে করোনা আতঙ্ক বিরাজ করছে।

গত বুধবার (২৪ জুন) দুপুরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে সবজি বীজ বিতরণী অনুষ্ঠানে এমপি ছাড়াও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী অলিদ ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামছুন নাহার স্বপ্না, কাশিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মির্জা রাজিক, কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুন-অর-রশিদ খান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজনীন আক্তারসহ অর্ধশতাধিক লোকজন উপস্থিত ছিলেন। এদিকে কৃষি অফিসের এমন অসচেতনতামূলক কাজের জন্য সচেতনমহলে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় বইছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফিরোজুর রহমান বলেন, ‘গত ১৬ জুন কৃষি অফিসের পিয়ন দুলালের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। সেসময় তাকে তার বাড়িতে আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি আইসোলেশনে না থেকে নিয়মিত অফিস করছিলেন। পরে বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) রাতে তার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ এসেছে।’

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজনীন আক্তার বলেন, ‘তার নমুনা দেয়ার বিষয়টি আমার জানা ছিল না। পরে বৃহস্পতিবার রাতে হাসপাতাল থেকে ফোন করে দুলালের করোনা পজেটিভের বিষয়টি জানানো হয়। এখন দুলালকে তার বাড়িতে আইসোলেশনে থাকার জন্য বলা হয়েছে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামছুন নাহার স্বপ্না বলেন, ‘বুধবার (২৪ জুন) উপজেলা হলরুমের অনুষ্ঠানে কৃষি অফিসের পিয়ন দুলাল উপস্থিত ছিল। কৃষি অফিস লকডাউনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। এছাড়াও ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের যার যার বাড়িতে আইসোলেশনে রাখার ব্যবস্থা করা হবে।’

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.