ব্রেকিং নিউজ

ধনবাড়ীতে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলা প্রশাসন কভিড- ১৯ করোনাভাইরাস প্রতিরোধে তৎপর থাকলেও থেমে নেই জনসমাগম। কোন বিধি নিষেধ না মেনে ধনবাড়ী উপজেলার সর্বত্র ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান, স্থানীয় হাট-বাজারগুলোতে স্বাভাবিক জীবনযাপনের মতো চলাফেরা ও বেচা-কেনা করছেন ব্যবসায়ীরা। সামাজিক দূরত্ব তো দূরের কথা মাস্কাও ব্যবহার করছে না জনসাধারণ।

এতে করে মারাত্মকভাবে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। হাটবাজারসহ বিভিন্নস্থানে প্রয়োজন ছাড়াই ভিড় করছেন মানুষজন। আর এ উপজেলাকে ইয়েলো জোন ঘোষণা করেছে প্রশাসন।

সরেজমিনে ধনবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠন ঘুরে দেখা যায়, প্রশাসনের শর্ত সাপেক্ষে উপজেলার সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও হাঁট-বাজারগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। কিন্তু সামাজিক দূরত্বতো দূরের কথা, হাত ধোয়া ও শারীরিক দূরুত্ব না মেনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মাস্ক ছাড়াই ঘরের বাইরে চলাফেরা করছেন অনেকেই। বিষেশ করে দেখা যায় ধনবাড়ী সদরের কসমেটিস্ ও গার্মেন্টসের দোকানগুলোতে।

যেখানে তাদের প্রয়োজনীয় কাজ একজনেই শেষ করতে পারবে। সেখানে চার থেকে পাঁচ জন করে এসেছেন কেনাকাটা করতে। আর এমন চিত্র দেখা যায় বিশেষ করে মহিলাদের ক্ষেত্রে। তারা প্রয়োজন ছাড়াই বাজারগুলোতে আসছেন ও অপ্রয়োজনে ঘুরফেরা করছেন। তাদের সাথে ছোট-ছোট শিশু সন্তানও রয়েছে। এদের অনেকেরই করোনাভাইরাস সম্পর্কে ধারণা নেই। স্বাস্থ্য বিধি কি তারা জানেন না। উপজেলার মুদির দোকানগুলোতেও দেখা অনুরূপ চিত্র। ক্রেতারা সেখানে সামাজিক দূরত্ব না মেনে ভিড় করে তাদের চাহিদা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় মালামাল ক্রয় করছেন। মাছ, মাংস ও সবজির বাজারেও একই চিত্র।

কিন্তু সরকারের বিধি অনুযায়ী ঘরের বাইরে বের হলে স্বাস্থ্য বিধি মেনে ও মাস্ক পরে এবং সামাজির দূরুত্ব মেনে চলাফেরা করতে হবে।

জানা যায়, প্রশাসনের পক্ষ থেকে জরুরী প্রয়োজন ছাড়া মানুষেরা রাস্তায় বের হওয়া বন্ধ করতে মাইকিং ছাড়াও ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। সম্প্রতি প্রশাসনের আইন অমান্য করে বিকাল ৪ টার পরও উপজেলার সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা থাকে। মানুষজন মাস্ক ছাড়া অযথা ঘোরাঘুরির জন্য কয়েক জনকে জরিমানাও করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রবীণ সংবাদকর্মী আব্দুল্লাহ আবু এহসান খোকন বলেন, মানুষ কোনভাবেই স্বাস্থ্য বিধি মানছেন না। বিশেষজ্ঞদের মতে সরকারী স্বাস্থ্য বিধি মেনে চললে করোনা সংক্রমণ রোধ কিছুটা হলেও রোধ করা সম্ভব।
ধনবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ শাহানাজ সুলতানা জানান, এ উপজেলায় মোট ২৭ জন করোনায় আক্রন্ত হয়েছে। এর মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ১৮ জন্য, চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সুস্থ্য থাকার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে সকল ধরণের সহয়োগিতা প্রদান করা হচ্ছে।

এ ব্যাপরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফা সিদ্দিকা বলেন, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে করোনা প্রতিরাধে সবাইকে সচেতন করা হচ্ছে এবং উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগকে করোনা প্রতিরোধে সকল নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.