ব্রেকিং নিউজ

টাঙ্গাইলে বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক: টাঙ্গাইলের ১১টি উপজেলায় টানা বৃষ্টি ও উজানের পাহাড়ি ঢলে নদ-নদীর পানি উপচে এবারের দীর্ঘস্থায়ী বন্যায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

পানিতে তলিয়ে থাকা জমির ধান, পাট, শাক-সবজিসহ বিভিন্ন ধরনের ফসল বিনষ্ট হচ্ছে। ফসল হারিয়ে হাজারো কৃষক চরম বিপাকে পড়েছেন।

কৃষি বিভাগ ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের বীজতলা তৈরি করে দেওয়া সহ বিভিন্ন প্রণোদনা দেওয়ার কথা ভাবছে।

জানাগেছে, এবারের বন্যায় টাঙ্গাইলের ১১টি উপজেলা প্লাবিত হয়েছে। দীর্ঘ সময় ধরে বন্যার পানির নিচে তলিয়ে থাকা বিস্তীর্ণ অঞ্চলের জমির ফসল বিনষ্ট হচ্ছে। ফসলের গাছ এখন পঁচতে শুরু করেছে। ফসলসহ অনেক আবাদি জমি নদীভাঙনে বিলীন হয়েছে।

ফসল হারিয়ে কৃষকদের মাঝে বিরাজ করছে চরম হতাশা। অধিকাংশ কৃষক ব্যাংক, এনজিও বা চড়া সুদে মহাজনের কাছ থেকে ঋণে টাকা এনে বিভিন্ন ফসলের আবাদ করেছেন।

এখন বন্যায় ফসলহানিতে তারা দুই চোখে অন্ধকার দেখছেন। তারা সরকারি সহায়তার দিকে তাকিয়ে আছেন।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, বন্যায় টাঙ্গাইলের ১০টি উপজেলার ১০ হাজার ৫৪২ হেক্টর জমির ফসল সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত ফসলের মধ্যে রয়েছে- বোনা আমন, রোপা আমনের বীজতলা, পাট, আউশ, বিভিন্ন প্রকার শাক-সবজী ও তিল।

টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আহসানুল বাসার জানান, ভাসমান বীজতলা, আগাম সবজি উৎপাদনের জন্য চারা প্রদান ও ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের তালিকা করে আর্থিক সহায়তা করা হবে।

তিনি আরও জানান, সঠিক সময়ে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক সরকারি সহায়তা পাবেন। এতে কৃষকরা আবার ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ পাবেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.