বিবস্ত্র করে নির্যাতন, ইউপি সদস্যসহ আরও ২ জন গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে অনৈতিক কাজের অপবাদ দিয়ে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় তোলপাড় দেশ। এমন ঘটনাকে কিসের সঙ্গে তুলনা দেবেন বুঝে উঠতে পারছেন না নেটিজেনরা। বাকরুদ্ধ হয়ে গেছেন অনেকে, ক্ষোভ প্রকাশ করার ভাষাও যেন খুঁজে পাচ্ছেন না তারা।

সর্বশেষ পাওয়া সংবাদে জানা গেছে, এ ঘটনায় স্থানীয় একজন ইউপি সদস্যসহ আরও ২ জনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ নিয়ে মোট ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এর আগে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগী ওই নারী। মামলায় উল্লেখ করা হয়, অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়া হয়। গত সেপ্টেম্বর মাসের শুরুর দিকের এই ঘটনায় ওই নারী রবিবার (৪ অক্টোবর) বেগমগঞ্জ থানায় দুটি মামলা করেন।

একটি মামলা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে, অন্যটি পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে। দুই মামলাতেই নয়জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারের বলা হয়, তাঁর স্বামীকে বেঁধে রেখে আসামিরা তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। তাঁরা এ ঘটনার ভিডিওচিত্র ধারণা করেন। গত এক মাস ধরে তাঁরা এই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার কথা বলে তাঁকে অনৈতিক প্রস্তাব দিচ্ছিলেন। তিনি এই অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাঁরা ফেসবুকে ভিডিওটি ছেড়ে দেন।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.