বাগেরহাটে স্ত্রী হত্যার দায়ে পুলিশ সদস্য গ্রেফতার

বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের শরণখোলায় ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী জোৎসনা বেগমকে (৩২) হত্যার অভিযোগে  সাদ্দাম হোসেন নামের এক পুলিশ সদস্যকে আটক করা হয়েছে। নিহত জ্যোৎস্না বেগম অভিযুক্ত  ওই পুলিশ সদস্যের  দ্বিতীয় স্ত্রী।  বৃহস্পতিবার রাতে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।  পারিবারিক কলহের জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে মনে করছেন পুলিশ ।
ঘাতক সাদ্দাম হোসেন শরণখোলা উপজেলার তাফালবাড়ি পুলিশ ফাঁড়িতে কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত। সে সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার বড়ধাল গ্রামের আবদুল লতিফ গাজীর ছেলে।
 এ ব্যাপারে নিউজ টাঙ্গাইলকে শরণখোলা থানার ওসি সাইদুর রহমান  জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে সাদ্দাম তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে লাশ পলিথিনে মুড়িয়ে বস্তায় ভরে লুকিয়ে রাখে। ওই রাতেই খবর পেয়ে পুলিশ শরণখোলার তাফালবাড়ি বাজার এলাকার মামুন ভিলায় অভিযান চালায়। সেখান থেকে ঘাতক সাদ্দামকে আটকের পর পরিত্যক্ত একটি ঘর থেকে বস্তাবন্দি জ্যোৎস্নার লাশ উদ্ধার করা হয়। সাদ্দাম হোসেনের দ্বিতীয় স্ত্রী  জ্যোৎস্না ও তাদের  ৬ বছরের ছেলে সন্তানকে নিয়ে ওই বাড়িতে ভাড়া থাকতেন তারা। জ্যোৎস্নার আগের ঘরের সন্তান নিয়ে কলহের জের ধরে তাকে হত্যা করেছে বলে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাদ্দাম স্বীকার করেছেন।
নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.