ব্রেকিং নিউজ :

সিনেমা ছেড়ে টাঙ্গাইলে কৃষি কাজে ব্যস্ত নাঈম

নব্বই দশকের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক নাঈম সিনেমা ছেড়েছেন বহু আগে। ’৯০ দশকের শুরুতেই এহতেশামের হাত ধরে চলচ্চিত্রে এসে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছিলেন নবাব বংশের এই সন্তান। পুরো নাম খাজা নাঈম মুরাদ। এহতেশামের ‘চাঁদনী’ ছবি দিয়েই রীতিমত বাজিমাত করেন তিনি। ছবিতে তার নায়িকা ছিলেন শাবনাজ। এরপর একাধারে অনেক ছবিতেই দেখা গেছে এই জুটিকে।

সেই নাঈম এখন সিনেমা না করলেও নিজেকে ব্যস্ত রেখেছেন ব্যবসার কাজে। শুধু তাই নয়, এই নায়ককে সম্প্রতি দেখা গেছে ক্ষেতে খামারে নিড়ানি দিতে। নিজের ক্ষেতে কৃষি কাজ করছেন।

সম্প্রতি নিজের ফেসবুকে বেশকিছু ছবি শেয়ার করেন এই নায়ক। টাঙ্গাইলে দেলদুয়ার থানার পাথরাইলে কৃষিকাজে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, নাঈম কৃষিকাজে প্রয়োজনে নিজেই ক্ষেতে নেমে যাচ্ছেন। নিড়ানি দিচ্ছেন। কখনওবা দাঁড়িয়ে তদারকি করছেন। আবার মাছচাষ করছেন, পোনা ছেড়ে দিচ্ছেন, আবার তাজা কই ঝাঁকে ঝাঁকে পুকুর থেকে ধরছেন। বোঝাই যায় এমন জীবনযাপন উপভোগ করছেন এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় এই নায়ক।

১৯৯৪ সালে চিত্রনায়িক শাবনাজকে বিয়ে করেন নাঈম। তাদের ঘরে রয়েছে দুই কন্যা সন্তান। বিয়ের পর ধীরে ধীরে অভিনয় থেকে সরে যান তারা দুজনেই। এখন ব্যস্ত পৈতৃক ব্যবসা এবং টাঙ্গাইলে বিভিন্ন খেলাধুলা নিয়ে। মায়ের সূত্রে টাঙ্গাইল করটিয়া জমিদার বাড়ির সন্তান। ব্যবসার পাশপাশি কৃষি কাজেও মনোযোগী নাঈম।

নাঈমের উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘দিল’, ‘জিদ’, ‘অনুতপ্ত’, ‘সোনিয়া’, ‘সাক্ষাৎ’, ‘টাকার অহংকার’, ‘ফুল আর কাঁটা’, ‘চোখে চোখে’সহ অনেক ছবিতে অভিনয় করেন। নাঈম ও শাবনাজ একত্রে প্রায় ২১টির বেশী চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন, তাঁদের একসঙ্গে অভিনীত শেষ ছবিটি হচ্ছে ‘ঘরে ঘরে যুদ্ধ’।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.