ব্রেকিং নিউজ :

বাবার স্বপ্ন পূরণে ঘোড়ায় চড়ে বিয়ে করতে গেল ছেলে

অনলাাই ডেস্ক: সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা রঙ্গারচর ইউনিয়নের সিংপুর গ্রামের বাসিন্দা মো.বাচ্চু মিয়া। দুই ছেলে তিন মেয়েকে নিয়ে তার সাজানো সংসার। স্বপ্ন ছিল তার বড় ছেলে মো.মনির হোসেনকে পালিত ঘোড়া রাজার পিঠে বসিয়ে বর সাজিয়ে কনের বাড়িতে যাবেন। পেশায় একজন কৃষক হলেও এমন স্বপ্ন লালন করে আসছেন দীর্ঘ দিন ধরেই। তবে তার স্বপ্ন এবার বাস্তবে রুপ নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) সেই স্বপ্ন সত্যি করলেন। জানা গেছে, তার বড় ছেলে মো. মনির হোসেনের বিয়ে ঠিক হয় বিরামপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. মরম আলীর মেয়ে শারমিন আক্তারের সঙঙ্গে। বরের বাড়ি থেকে কনের বাড়ি নৌকায় যেতে সময় লাগে প্রায় ৩০ মিনিট লাগে। কিন্তু বাবার স্বপ্ন সত্যি করার জন্য ১০০ জন বরযাত্রী নিয়ে বর ঘোড়ায় চড়ে হাওরের চিকন পথ দিয়ে ১ ঘণ্টায় কনের বাড়িতে গিয়ে পৌঁছান।

বরের বাবা বাচ্চু মিয়া বলেন, আমার ছেলে যখন ছোট ছিল তখন থেকে আমি স্বপ্ন দেখতাম বর বেশে ছেলেকে ঘোড়ার পিঠে বসে কনের বাড়িতে যাবে। আর আমরা সেই ঘোড়ার পিছনে পিছনে সবাই হেঁটে যাব। আজ আমার সেই স্বপ্ন হয়েছে। সত্যি আজ আমি খুব আনন্দিত।

বর মো.মনির হোসেন বলেন, আমার বাবার ছোটবেলা থেকে স্বপ্ন ছিল আমাকে ঘোড়ায় চড়িয়ে কনের বাড়িতে নিয়ে যাবেন। সেই জন্য তিনি একটা ঘোড়া পালতে থাকেন, তার নাম দেওয়া হয়েছে রাজা। আমি সেই রাজার পিঠে চড়ে আজকে বর সেজে কনের বাড়িতে গিয়েছি, বাবার স্বপ্ন সত্যি করতে পেরে সত্যি আমার খুব ভালো লাগছে।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.