মধুপুরে আদিবাসীদের বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারক লিপি প্রদান

মধুপুর প্রতিনিধিঃ তথাকথিত জাতীয় উদ্যান ও সংরক্ষিত বনভূমি ঘোষণার নামে মধুপুরের আদিবাসীদের নিজ ভূমি হতে বনবিভাগ কর্তৃক উচ্ছেদ ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (২৫ শে জানুয়ারি) সকাল ১১ টায় টাঙ্গাইলের মধুপুর বাসস্ট্যান্ডে মধুপুর গড়ের সংক্ষুব্দ আদিবাসী জনতার ব্যানারে, জয়েনশাহী আদিবাসী উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি ইউজিন নকরেক এর সভাপতিত্বে, বাগাছাস কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি জন জেত্রার সঞ্চালনায়, মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ আদিবাসী নেতা অজয় এ মৃ, উইলিয়াম দাজেল, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শরিফ আহমেদ নাসির, বাংলাদেশ আদিবাসী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অলিক মৃ, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম, সুলেখা ম্রং সহ প্রমূখ।

উক্ত মানববন্ধনে ইউজিন নকরেক বলেন, “মধুপুর গড়াঞ্চলে শতশত বছর ধরে আদিবাসীদের বসবাস কিন্তু বনবিভাগ কয়দিন পরপর আদিবাসীদের নিজ ভূমি উচ্ছেদ করার নোটিশ প্রদান করে।আমরা মধুপুরের জনগণ বনবিভাগ কর্তৃক তথাকথিত উচ্ছেদ নোটিশ মানিনা।”

অজয় এ মৃ বলেন, “বনবিভাগ হওয়ার আগ থেকেই মধুপুর বনে আদিবাসীরা বসবাস করছেন। সুতরাং আলোচনা ছাড়াই আদিবাসীদের উচ্ছেদ নোটিশ দিয়ে যে নীল নকশা করছে আমরা তার প্রতিবাদ জানাই।”

অলিক মৃ বলেন, “পীরেন হত্যার বিচার আমরা পাইনি। বরং গড়াঞ্চলের নিরীহ আদিবাসীদের নামে শতশত মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। অবিলম্বে পীরেন হত্যার বিচার করতে হবে এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। আদিবাসীদের ভূমি সমস্যার স্থায়ী সমাধান করতে হবে।”

মানববন্ধন থেকে আগামী ৩১ জানুয়ারি জলছত্র মাঠে মহাসমাবেশের ঘোষণা করা হয়েছে। মানববন্ধন শেষে মধুপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.