সখীপুরে শিক্ষক সমিতির কল্যাণ তহবিলের টাকা নয় ছয়- চেয়ারম্যানকে পদ থেকে অব্যাহতি

নিজস্ব প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির অধীনস্থ কল্যাণ তহবিলের চেয়ারম্যানের পদ থেকে তুলা মিয়াকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।  মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির এক জরুরি সভায় সমিতির কল্যাণ তহবিলের প্রায় সাড়ে ২৭ লাখ টাকা নয় ছয় করার অভিযোগে তাকে ওই পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। তুলা মিয়া উপজেলার কচুয়া পাবলিক উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, সমিতির হিসাব নিয়ে গঠিত নিরীক্ষা কমিটির (অডিট) প্রতিবেদন ও সুপারিশ নিয়ে গত ২৬ জানুয়ারি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির কার্যালয়ে এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় কল্যাণ তহবিলের চেয়ারম্যান তুলা মিয়ার কাছে ২৭ লাখ ৪৬ হাজার ২০০ টাকা গচ্ছিত রয়েছে বলে দাবি করা হয়। ওই সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে ওই টাকা ফেরত চেয়ে গত ২৭ জানুয়ারি তুলা মিয়াকে চিঠি দেওয়া হয়। চিঠির জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় গত ১৫ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত ওই সভায় তাঁকে কল্যাণ তহবিলের চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম হোসেন নিউজ টাঙ্গাইলকে বলেন, কচুয়া পাবলিক উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তুলা মিয়া সমিতির কল্যাণ তহবিলের চেয়ারম্যান ছিলেন। তাঁর কাছে থাকা ওই তহবিলের প্রায় সাড়ে ২৭ লাখ টাকা ফেরত না দেওয়ায় তাঁকে ওই পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও কল্যাণ তহবিলের সমুদয় কাগজপত্র, এফডিআর, রেজিস্টার, ব্যাংক চেকবই ফেরত চেয়ে আরেকটি চিঠি দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, শুধু অব্যাহতি নয় ওই টাকা ফেরত না দিলে তার বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে কল্যাণ তহবিলের চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যহতি পাওয়া   তুলা মিয়া  তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সমিতি আমার কাছে ২৭ লাখ টাকা পেলেও আমি সমিতির কাছে উল্টো ৩৫ লাখ টাকা পাই। আমার পাওনা  টাকা আগে ফেরত দেওয়া হোক। না হলে আমিও আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হবো।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.