ব্রেকিং নিউজ :

দিনাজপুরে মাদরাসা থেকে পালালো ৫ শিশু ছাত্র, ভূঞাপুর থেকে উদ্ধার

ফরমান শেখ, নিজস্ব প্রতিবেদক: পড়াশোনার অতিরিক্ত চাপ সহ্য করতে না পেরে মাদরাসা থেকে পালিয়ে আসা দিনাজপুরের ৫ শিশু ছাত্রকে উদ্ধার করেছে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর থানা পুলিশ। গত রবিবার রাতে টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব রেলস্টেশন এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। সোমবার (০১ মার্চ) দুপুরে ভূঞাপুর থানা এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উদ্ধাররত শিক্ষার্থীরা দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার হরিচন্দ্রপুর গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে নূর আলম (১১), নসরতপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে আব্দুল রহিম (১০), দক্ষিণ নওখৈর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকর ছেলে রহিদুল ইসলাম (১০), চিরিরবন্দর পৌর এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে ফাহিম হোসেন (১২), কোতোয়ালি উপজেলার রামডুবি গ্রামের মুহাম্মাদ সোহেল রানার ছেলে রাকিবুল ইসলাম নাঈম (১১)।

ভূঞাপুর থানা সূত্র জানায়- ওই শিক্ষার্থীরা চিরিরবন্দর উপজেলার দক্ষিণ আলোকডিহি কারিয়ানা হাফিজিয়া ও কওমী মাদ্রাসায় পড়াশোনা করতো। শিক্ষার্থীদের মতে, তারা পড়াশোনা অতিরিক্ত চাপ সহ্য না করতে পেরে গত রবিবার মাদরাসা থেকে পালিয়ে দিনাজপুর রেলস্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশ্য ট্রেনে ওঠে। পরে রাতে বঙ্গবন্ধু রেলসেতু পূর্ব রেলস্টেশনে নেমে এলোমেলোভাবে ঘুরাঘুরি করছিল। এসময় ট্রেন ছেড়ে দেওয়ায় পথ হারিয়ে ফেলে।

থানা সূত্র আরও জানা যায়, এক পর্যায়ে ওই শিশুরা উপজেলার নিকরাইল ইউনিয়নের পাথাইলকান্দি (যমুনা সেতু) বাজারে বিসমিল্লাহ নামক একটি থাবার হোটেলে আসেন। এ সময় স্থানীয়রা তাদের জিজ্ঞাসা করলে পথ হারিয়েছে বিষয়টি তাদের জানান। এরপর স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে অবগত করলে মোবাইল টিমের অফিসার এসআই জুয়েল মিয়া ৫ শিশু ছাত্রদের উদ্ধার করে থানয় হেফাজতে রাখে।

এ বিষয়ে ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুল ওহাব মুঠোফোনে জানান- দিনাজপুর চিরিরবন্দরের একটি মাদরাসায় ওই ৫ জন ছাত্র পড়াশোনা করে আসছিল। পড়াশোনার চাপ সহ্য না করতে পেরে পালিয়ে ট্রেন-যোগে ঢাকা যাচ্ছিল। পথিমধ্যে পথ হারিয়ে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব রেলস্টেশনে নেমে যমুনা সেতু বাজারের একটি খাবার হোবলে অবস্থান করেন। এ বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে দিয়ে তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। তাৎক্ষণিক তাদের দেয়া তথ্যমতে পরিবারের লোকজনদের সাথে যোগাযোগ করে হস্তান্তর করে দেয়া হয়।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.