ব্রেকিং নিউজ :

শাহজাদপুরের ৫নং গালা ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি নাজমুল হক


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর উপজেলার ৫নং গালা ইউনিয়নের আসন্ন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রাপ্তিতে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বর্তমান শাহজাদপুর উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাজমুল হক।

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষে জননেত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশে উন্নয়নের ধারা চলমান রয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় এই উন্নয়নের একজন ক্ষুদ্র অংশীদার হওয়ার জন্য একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন নাজমুল হক।

তিনি ছাত্রবেলা থেকেই বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। তিনি ৫ নং গালা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ- সভাপতি নির্বাচিত হন। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৬-১৯৯৭ শিক্ষা বর্ষে শাহজাদপুর সরকারী কলেজ ছাত্র সংসদের ব্যায়ামাগার বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হন।

বর্তমানে তিনি শাহজাদপুর উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

মোঃ নাজমুল হক ৭ জুলাই ১৯৮১ সালে রতনদিয়া গ্রামের একটি মুসলিম সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর একজন সত্যিকারের কর্মী।
তিনি ১৯৯৬ সালে এসএসসি, এইচএসসি ১৯৯৮ সালে, স্নাতক বিএসএস পাশ করেন ২০০৪ সালে এবং এলএলবি অধ্যয়ন রত আছেন।

নাজমুল হক ৮ম শ্রেনীতে বৃত্তি পেয়েছিলেন।
নাজমুল হক তার ৮ ভাইয়ের মধ্যে ৬ষ্ঠ। এবং সবাই আওয়ামী পরিবারের বলে সুপরিচিত। তার দ্বিতীয় ভাই গালা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ৭ম ভাই আব্দুর রাজ্জাক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক কৃর্তী ছাত্র এবং বর্তমানে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর পদে নওগা জেলার সি আই ডিতে কর্মরত আছেন।

নাজমুল হক কর্মজীবনের শুরুতে প্রাইম ব্যাংকে সিনিয়র ক্রেডিট রিস্ক অফিসার হিসেবে ১২ বছর সফল ভাবে চাকুরী করেছেন। বর্তমানে তিনি একজন প্রতিষ্ঠিত গার্মেন্টস কেমিক্যাল ব্যবসায়ী হিসেবে সু প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন।

covid-19 কালীন সময়ে তিনি গালা ইউনিয়নের দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে থেকে সাধ্যমত সাহায্য সহযোগিতা করেছেন।

তিনি গালা ইউনিয়নের গরীব ও মেধাবী ছাত্রদের গঠনমূলক পরামর্শ ও বিভিন্ন সাহায্য সহযোগিতা করে আসছেন।

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জনক। তার স্ত্রী স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রানলয়ে কর্মরত আছেন। বড় ছেলে মোঃ নিয়ামুল হক নাজিব উত্তরা মডেল কলেজের নবম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের মেধাবী ছাত্র। ছোট ছেলে মোঃ নাঈমুল হক এর বয়স মাত্র ৪ বছর।
নাজমুল হক একান্ত সাক্ষাৎকারে বলেন, ” আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক ও একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী।

তাই আমি ৫ নং গালা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেলে বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে ভিজিডি কার্ড, বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধি ভাতা সহ অন্য কোন নাগরিক সুবিধা প্রদানে অর্থ আয়ের চিন্তা করবো না কারন মহান আল্লাহতায়ালা আমাকে ব্যবসায়িক ভাবে অনেক দিয়েছেন। আমার ইচ্ছা জননেত্রী শেখ হাসিনার দেয়া উন্নয়ন কর্মকান্ড জনসাধারণের নিকট বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিজ খরচে পৌছে দিব।

পরিতাপের বিষয় আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব ও আধুনিক কোন ভবন নেই, আমি নির্বাচিত হলে, প্রথমেই আধুনিক একটি ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মানের জন্য কাজ করবো। আমি সকল শ্রেনী পেশার মানুষের নিকট দোয়া চাই”।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.