সকলের সহযোগিতায় বাঁচতে চায় কিডনী রোগে আক্রান্ত সুলতান মাহমুদ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার নলুয়া গ্রামের সিদ্দিক হোসেনের ছেলে সুলতান মাহমুদ (২৫)। দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে গেছে। বর্তমানে কিডনি হারিয়ে আর্থিক অভাব অনটনে সু-চিকিৎসার অভাবে সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে তার পরিবার। সুলতান মাহমুদ ২ সন্তানের জনক। অভাবের সংসারে সংগ্রাম করে বেঁচে আছেন তিনি। পরিবারের সকল দায়িত্ব ছিল তার। সুস্থ থাকাকালীন সময়ে সে কাজ করতেন টাক ড্রাইভার হিসেবে। তার উপার্জনের টাকায় চলতো পরিবার। তিনি ই পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি । বর্তমানে টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছে না। দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে যাওয়ার কারনে পরিবারটি অসহায় হয়ে পড়েছে।

ছেলের চিকিৎসার জন্য বাবা সিদ্দিক হোসেন দিশেহারা। সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছেন। রক্ত ও ডায়ালাইসিস করাতে প্রতি সপ্তাহে অনেক টাকা খরচ হয়। সব মিলিয়ে টাকার অভাবেই জীবন প্রদীপ নিভে যেতে বসেছে সুলতানের। একমাত্র সমাজের বিত্তবানরা পাশে দাড়ালেই সুলতানের কিডনি প্রতিস্থাপন করা সম্ভব। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য প্রয়োজন অনেক টাকা প্রয়োজন। পরিবারের পক্ষে এতো টাকা যোগাড় করা কখনোই সম্ভব না। সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের জন্য আবেদন জানিয়েছে তার পরিবার।

সুলতানের বাবা বলেন, কখনো ভাবি নাই ছেলের জীবনটা হঠাৎ এমন হয়ে যাবে। সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে এলেই আমার বাবা হয়তো সুন্দর এ পৃথিবীতে আরও কিছুদিন বাঁচতে পারে।

সুলতানের মোবাইল নম্বরেঃ বিকাশ ০১৮৬৮৭৫৫৮০৭
সহযোগিতা করতে :
অগ্ররণী ব্যাংক নলুয়া শাখা: সিদ্দিক হোসেন(সুলতানের বাবা) ০২০০০০৭৬৭৬৮০৭

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.