ব্রেকিং নিউজ :

টাঙ্গাইলে ২টি বন গরু নিয়ে উৎসুক জনতার ভিড়

ঘাটাইল প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার দেউলাবাড়ি ইউনিয়নে ২ টি বন গরু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন এলাকার মানুষ। সেই সাথে গরুটিকে  এক নজর দেখার জন্য  মানুষের মাঝে ব্যপক উৎসাহ ও ভিড় লক্ষ করাগেছে।
খুঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ২ দিন যাবত দুইটি নীল রঙ্গের গরু ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে ছুটাছুটি করছে।আবার মাঝে মাঝে পাকা ধান ক্ষেতে নেমে এলোপাথারি দৌড়া দৌড়ি করে কৃষকের পাকা ধান নষ্ট করছে।গরু দুটিকে এক নজর দেখার জন্য শত শত মানুষ গরুটির পিছনে পিছনে দৌড়াচ্ছে।এতে করে গরুটিও যেমন বিশ্রাম নিতে না পারায় হাফিয়ে পড়ছে আবার যাহারা গরুটির পিছনে ছুটছেন প্রচন্ড রোদে তারা ক্লান্ত হয়ে অসুস্হ্য হয়ে পড়ছেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাঘের হাট নচিয়ামামুদপুর গ্রামের ওষুধ ব্যবসায়ি মোঃ খাইরুল ইসলাম, হাফিজুর, বোরহান এবং ফুলহারা গ্রামের মশিউর রহমান বাবর, পর্ব আহম্মেদ, শাজাহান খান,  সহ অনেকেই বলেন গত ২ দিন যাবত গরু ২ টি প্রথমে চেড়াভাঙ্গা সংলগ্ন পাহাড়ের টিলার উপর কয়েক জন ছোট ছোট বাচ্চা দেখতে পেয়ে বাড়িতে তাদের অভিভাবকদের খবর দেন। তারা প্রথমে বিশ্বাস করতে পারছিলেন না।পরে বিষয়টি জানা জানি হলে এলাকায় ব্যপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়। পরে শত শত মানুষ গরু ২ টিকে দেখার জন্য ভিড় করলে গরু ২ টি ভয় পেয়ে  দিকবেদিক ছুটা ছুটি করতে থাকে এবং মানুষের চোখের আড়ালে চলে যায়।পরে বিভিন্ন গ্রাম থেকে সংবাদ আসে গরু গুলো তারা বিভিন্ন স্নানে দেখতে পেয়েছেন।
গ্রামের অসংখ্য মানুষ তাদের পিছনে দৌড়াদৌড়ি করছেন,মানুষ ও গরুর পায়ে পৃষ্ট হয়ে কৃষকের পাঁকা ধান বিনিষ্ঠ হচ্ছে।
এ ব্যপারে দেউলাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম খান বলেন, আমি শুনেছি এমন ২ টি গরু আজ দুই দিন যাবত ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে ছুটাছুটি করছে।আমি যতটুকু জানতে পেরেছি তাতে আমার কাছে মনে হয় প্রতারক কিছু মানুষ গরু দুটিকে আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে মানুষকে বোকা বানিয়ে জবাই করে আসল গরুর গোস্ত হিসাবে বিক্রি করার জন্য চোরাই পথে ইউনিয়নের পাহাড়ি অঞ্চলে এনে  বেঁধে রেখেছিল। সেই খান থেকে হয়তো গরু দুটি ছুটে লোকালয়ে চলে এসেছে। আমি উপজেলা প্রাণী সম্পদ ও বন বিভাগের সাথে সংশ্লিষ্ঠ সকলের প্রতি অনুরোধ করবো অতিদ্রুত বিলুপ্ত প্রায় প্রাণী দুটিকে উদ্ধার করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।
"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.