ব্রেকিং নিউজ :

কোরআনের পুরনো কপি সংগ্রহ করে বিতরণ করেন তিনি

পবিত্র কোরআনের পুরনো কপি অনুসন্ধান করে বেড়ান মুহাম্মদ সালিম আল আয়াসিরা। নিজের পুরনো গাড়িযোগে তিনি কোরআনের ছেঁড়া-ফাড়া কপি সংগ্রহ করে তা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করেন। অতঃপর ব্যবহার উপযোগী করে বিভিন্ন মাদরাসা ও মসজিদে তা বিতরণ করেন। কিংবা আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে তা পাঠিয়ে দেন।

পবিত্র কোরআনের ভালোবাসা ও সম্মাননায় দীর্ঘ ৫০ বছর যাবৎ আল আয়াসিরা জর্দানের বিভিন্ন শহর-নগরে পুরনো কপি সংগ্রহে ঘুরে বেড়ান। একাজে সন্তানরা ও কয়েকজন কর্মচারী তাকে সহায়তা করেন। প্রতিমাসে তার প্রায় তিন শ দিনার (৪২০ ডলার) ব্যয় হয়। এছাড়াও অনেক বিত্তবান মুসলিম তাকে অনুদান দিয়ে সহায়তা করেন।

আল আয়াসিরা শুধুমাত্র কোরআনের কপি সংগ্রহে ব্যস্ত থাকেন না। বরং পাঠ্যপুস্তক, সংস্কৃতি ও বিজ্ঞানের বই-ও তিনি সংগ্রহ করে বেড়ান। সংগৃহীত বই-পুস্তক জর্দানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে জেরাশ প্রদেশের সাকিব শহরে নিজের লাইব্রেরিতে নিয়ে যান। অতঃপর তা উপযুক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে বিতরণ করা হয়।

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও মাদরাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা আল আয়াসিরার লাইব্রেরিতে আসেন। নিজেদের পছন্দের বইপত্র খুঁজে পেলে বিনামূল্যে তা সংগ্রহ করেন। ভাষা, সাহিত্য, অভিধান, তাফসির ও ফিকাহসহ নানা বিষয়ের বই থাকে আল আয়াসিরার লাইব্রেতিতে।

আল আয়াসিরা বলেন, বিগত সময়ে আমরা ছয় হাজারের বেশি কোরআনের কপি আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে রপ্তানি করেছি। ঘানা, নাইজেরিয়া, নাইজার, মালিসহ বিভিন্ন দেশে তা রপ্তানি করা হয়। বিভিন্ন দাতব্য সংস্থা একাজে সহযোগিতা করে।

তিনি আরও জানান, আফ্রিকায় রপ্তানিকৃত কোরআনগুলো আমি বিভিন্ন স্থানের ডাস্টবিন ও রাস্তার পাশের ঝুড়ি থেকে সংগ্রহ করেছি। কোরআনের কপিগুলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করি। কোরআনের কভার ছেঁড়া-ফাড়া হলে তা জাতীয় গ্রন্থাগারে সংরক্ষণের জন্য পাঠিয়ে দিই।

পবিত্র কোরআনের কপি কোথাও না ফেলে সবাইকে তা সংরক্ষণের অনুরোধ করেন আল আয়াসিরা। বরং অতিরিক্ত সব কপি অন্যদের দেওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। পবিত্র কোরআন সংরক্ষণে আল আয়াসিরার অভিনব উদ্যোগে সবাই অভিভূত। জর্দানের রাজা দ্বিতীয় আবদুল্লাহ বিন হুসাইন এমন অভিনব উদ্যোগে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করেন।

সূত্র : আলজাজিরা

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.