ল্যাপটপ-মোবাইলের দামের ৭০ শতাংশ ঋণ পাবেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

করোনা মহামারিতে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রমের সুবিধার্থে ল্যাপটপ, মোবাইল, কম্পিউটার ও ট্যাবসহ ডিজিটাল ডিভাইস কেনার জন্য গ্রাহকের ব্যাংক ঋণের সীমা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এখন থেকে এসব পণ্য কিনতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মোট মূল্যের ৭০ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ দেবে ব্যাংক। এতোদিন এ সীমা ছিল ৩০ শতাংশ।

সোমবার (১২ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে প্রায় সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেই বর্তমানে অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম চলছে। এসময় শিক্ষক ও শিক্ষার্থী এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল ডিভাইসের ব্যবহার বেড়েছে। সরকারের রূপকল্প ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার অংশ হিসেবে তৃণমূল পর্যায়ে নির্ভরযোগ্য ডিজিটাল অভিগমন এবং তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ মানবসম্পদ উন্নয়নে আইসিটি খাতে অর্থায়নকে উৎসাহিত করা হচ্ছে।

এসব বিবেচতায় ভোক্তা ঋণের আওতায় গ্রাহকের অনুকূলে ডিজিটাল ডিভাইস (ল্যাপটপ, মোবাইল, কম্পিউটার, ট্যাব ইত্যাদি) ক্রয় বাবদ ঋণ বিতরণের ক্ষেত্রে বিদ্যমান ঋণ-মার্জিন অনুপাত ৩০:৭০ এর পরিবর্তে সর্বোচ্চ ৭০:৩০ অনুপাত অনুসরণ করা যাবে। অর্থাৎ পণ্যের দামের ৭০ শতাংশ ঋণ নেয়া যাবে।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, গ্রাহক অর্থায়ন সংক্রান্ত ২০০৪ খ্রিষ্টাব্দের নিয়মনীতির অন্যান্য নির্দেশনা অপরিবর্তিত থাকবে। এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হবে এবং পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ৪৫ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হলো সার্কুলারে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.