সখীপুর থেকে চুরি হওয়া অর্ধশত শূকর মৌলভীবাজার থেকে উদ্ধার

এম সাইফুল ইসলাম শাফলু :টাঙ্গাইলের সখীপুর থেকে চুরি হওয়া অর্ধশত শূকর মামলার দুইদিনের মাথায় সিলেটের মৌলভী বাজার থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার ভোররাতে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই নাজিম উদ্দিন চুরি হওয়া ৫১টি শুকরের মধ্যে ৪০টি সিলেটের মৌলভী বাজার জেলার কুলাউড়া থেকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করেন। উদ্ধারকৃত শূকরের বাজার মূল্য প্রায় সাড়ে ৫ লাখ টাকা। শনিবার বিকেলে সখীপুর থানা ক্যাম্পাসে শূকরের মালিক ঘাটাইলের ধলাপাড়া গ্রামের খোকা চন্দ্র দাসের ছেলে পরেশ চন্দ্র দাসের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

জানা যায়, ঘাটাইল উপজেলার ধলাপাড়া গ্রামের খোকা চন্দ্র দাসের ছেলে পরেশ চন্দ্র দাসের চারজন কর্মচারী ১০৯টি শূকর নিয়ে সখীপুর পৌরসভার আন্দি জঙ্গলে অবস্থান নেন। গত ১১ জুলাই রবিবার রাত ১টার দিকে ওই চার কর্মচারীকে গাছের সাথে বেঁধে রেখে ১০৯ টি শূকরের মধ্যে ৫১টি শূকর চুরি করে নিয়ে যায় দূবৃত্তরা। এ ঘটনায় গত ১৫ জুলাই বৃহস্পতিবার শূকরের মালিক পরেশ চন্দ্র দাস অজ্ঞাত নামে মামলা করলে পুলিশ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ওইদিন রাতেই নেত্রকোনা জেলার কমলাকান্দা উপজেলার কুয়ারপুর গ্রামের আলী আজগরের ছেলে আকবর হোসেন রাসেলকে (২৩) গ্রেফতার করে। পরে রাসেলকে ১৬ জুলাই দুইদিনের রিমান্ড চেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠালে আদালত দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ১৭ জুলাই দিবাগত রাত ৩টার দিকে সিলেটের মৌলভী বাজার জেলার কুলাউড়া পৌরসভার ডাস্টবিন থেকে শূকরগুলো জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই নাজিম বলেন, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে চুরি হওয়া শূকর উদ্ধার করে মালিকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামিকে রিমান্ড শেষে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হবে।

 

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.