ব্রেকিং নিউজ :

ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ে রাস্তা নির্মাণে নানা অনিয়ম

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (মাভাবিপ্রবি) রাস্তাগুলো সংস্কার ও রাস্তার প্রশস্ততা বাড়িয়ে ২৪ ফুট করা হচ্ছে। এর ব্যয় ধরা হয়েছে ৪ কোটি ৩৩ লাখ ২৪ হাজার ৫২ টাকা।
তবে এ রাস্তার কাজগুলো নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে সংস্কার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক-কর্মকর্তা জানান, ইটের সঙ্গে শতভাগ বালু মিশ্রণ করে রাস্তায় ফেলে ঢালাই দেওয়ার কথা থাকলেও তা করা হচ্ছে না। রাস্তা খনন করে সেখানকার মাটি দিয়েই ইটের খোয়ার সঙ্গে মিশ্রণ করে রাস্তায় ফেলে ঢালাই দেওয়া হচ্ছে। এতে করে রাস্তাটি অল্প দিনেই ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে মনে করছেন তারা।
সরেজমিন বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, বালুর পরিবর্তে মাটি দিয়ে ইটের খোয়ার সঙ্গে মিশ্রণ করা হচ্ছে। এরপর সেগুলো রাস্তায় ফেলা হচ্ছে। এ ছাড়া রাস্তার মাঝে বিদ্যুতের খুঁটির ভাঙা অংশ রেখেইে ঢালাই দেওয়া হয়েছে। এতে করে ওই রাস্তায় চলাচলকারীদের বিপদের সম্মুখীন হতে হচ্ছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষক জানান, পুরাতন রাস্তা খনন করে যে মাটি পাওয়া গেছে সেগুলো দিয়েই ইটের খোয়া মিশ্রণ করে রাস্তায় ফেলা হচ্ছে। এ ছাড়া ঢালাই করার সময় সিমেন্টের পরিমাণ কম দেওয়ায় অনেক স্থানে ঢালাই উঠে যাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল সূত্র জানায়, দুটি ভাগে বিভক্ত রাস্তার প্রথম আরসিসি রোডটি নির্মাণ করা হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১নং গেট থেকে ৫নং গেট, প্রত্যয় ৭১-এর সামনে থেকে মুক্তমঞ্চ পর্যন্ত। যার চুক্তিমূল্য ধরা হয়েছে ২ কোটি ৭০ লাখ ৭৫ হাজার ৪৩৬ টাকা। এর দৈর্ঘ্য হবে ২৭৫০ ফুট এবং প্রশস্ত হবে ২৪ ফুট।
দ্বিতীয় আরসিসি রোডটি হবে দ্বিতীয় একাডেমিক ভবন-লাইব্রেরি-বঙ্গবন্ধু হল পর্যন্ত। যার চুক্তিমূল্য ধরা হয়েছে ১ কোটি ৬২ লাখ ৪৮ হাজার ৬১৬ টাকা। যার দৈর্ঘ্য হবে ১৩৫০ ফুট এবং প্রশস্ত হবে ২৪ ফুট। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী মো. আবু তালেব জানান, রাস্তায় ইটের খোয়া মিশ্রণের সময় শতভাগ বালু দিতে হবে। এজন্য ঠিকাদার বাইরে থেকে এবং পুরাতন রাস্তা থেকে যে বালু পেয়েছে সেগুলো দিয়েই মিশ্রণ করা হচ্ছে। পুরাতন রাস্তা খনন করলে কীভাবে বালু পাওয়া যায় এ বিষয়ে তিনি বলেন, পুরাতন রাস্তা থেকে তো বালু পাওয়া যায়, আর সেই বালু দিয়েই খোয়া মিশ্রণ করে ফেলা হচ্ছে। তবে রাস্তায় বিদ্যুতের খুঁটির ভাঙা অংশ রেখে ঢালাই করা হয়েছে কিনা সেটি খোঁজ নিয়ে দেখা হবে।
"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।