সন্তানদের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বৃদ্ধ বাবা-মা

জামালপুরে সন্তানদের ভয়ে নিজ বসতভিটা ছেড়ে স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন হাবিবুর ঘটক (৬৫) নামের এক বৃদ্ধ। সম্প্রতি সদর উপজেলার হাসিল বটতলা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে মারধর করে তাদের বের করে দেয় হয়। এরপর থেকে সড়কে ঘুরে বেড়াচ্ছেন তারা।

এ ঘটনায় রোববার (৮আগস্ট) সরিষাবাড়ী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন হাবিবুর ঘটক।

অভিযোগে জানা যায়, সন্তানরা ভরণ-পোষণ না দিয়ে তাদের মারধর করে ঘর থেকে বের করে দেন। এরপর বৃদ্ধ স্ত্রীকে নিয়ে প্রায় দেড় মাস ঘুরে পৌরসভার বাউসী বাজারের আব্বাস আলীর বাসা ভাড়া নিয়ে সেখানে খেয়ে না খেয়ে থাকতে শুরু করেন। পরে বৃদ্ধার বড় মেয়ে রত্না বেগম ৬ আগস্ট তাদের বাড়িতে নিয়ে যান। বিভিন্ন অজুহাতে তাদের পুনরায় মারধর শুরু করলে পরদিন থেকে জীবনের ভয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন বৃদ্ধ দম্পতি।

বিষয়টি স্থানীয় তিতকল্লা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নাজমুল হক বাবুকে অবহিত করলে তিনি থানায় লিখিত অভিযোগ দিতে পরামর্শ দেন।

ভুক্তভোগী হাবিবুর ঘটক বলেন, মেয়েরা বাড়ি থেকে মারধর করে তাড়িয়ে দিয়েছে। আমি এখন জীবনের ভয়ে বৃদ্ধ স্ত্রীকে নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত রত্না বেগমের স্বামী রেজাউল করিম বলেন, ঘটনাটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমার শ্বশুর দ্বিতীয় বিয়ে করে অন্যত্র বসবাস করতে থাকেন। পরে মেয়েরা তাকে বুঝিয়ে বাড়িতে নিয়ে আসতে চাইলে তারা অস্বীকৃতি জানান। কোনো মারধরের ঘটনা ঘটেনি।

সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর রকিবুল হক বলেন, এমন একটি অভিযোগ আমরা পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

"নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.