কার্যকর হচ্ছে না সেতু বিভাগের গণবিজ্ঞপ্তি; আগের টোলেই বঙ্গবন্ধু সেতু পারাপার

নিউজ ডেস্ক: বঙ্গবন্ধু সেতু ও মুক্তারপুর সেতুর নতুন টোলের হার মঙ্গলবার রাত ১২টা ৫ মিনিট থেকে কার্যকর হওয়ার কথা থাকলেও সেটি সম্ভব হচ্ছে না। ‘অনিবার্য কারণ’ দেখিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বাড়তি টোল মঙ্গলবার থেকে কার্যকর না করতে নির্দেশনা দিয়েছে।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) বাংলাদেশ সেতু বিভাগ থেকে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে বঙ্গবন্ধু সেতু ও মুক্তারপুর সেতুর (৬ষ্ঠ বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু) নতুন টোলের হার বাস্তবায়নের নির্দেশনা দেওয়া হয়। এতে বলা হয়, মঙ্গলবার রাত ১২টা ৫ মিনিট (১৬ নভেম্বর) থেকে নতুন হারে টোল আদায় শুরু হবে। সেখানে টোলের হার ২০ থেকে ৩০ শতাংশ বাড়ানোর কথা বলা হয়।

কিন্তু ‘অনিবার্য কারণ’ দেখিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় বাড়তি টোল মঙ্গলবার থেকে কার্যকর না করতে নির্দেশনা দিয়েছে। বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার রাত ১২টার পর থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পারাপার হওয়া পরিবহন থেকে সরকার ঘোষিত বাড়তি টোল আদায় শুরু হওয়ার কথা ছিল। সে লক্ষ্যে সব প্রস্তুতিও নেওয়া হয়। তবে রাতে মন্ত্রণালয় থেকে আজ থেকে বাড়তি টোল আদায় কার্যক্রম শুরু না করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়। ফলে বাড়তি টোল আদায় হচ্ছে না। আগের টোল দিয়েই চালকরা সেতু পারাপার হতে পারবেন।তিনি আরও বলেন, কবে নাগাদ এটি কার্যকর হবে সেটিও বলা যাচ্ছে না।

এর আগে ২ নভেম্বর (মঙ্গলবার) বঙ্গবন্ধু সেতুতে নতুন টোল আদায় নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (উন্নয়ন) মোহাম্মদ আনোয়ারুল নাসের স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়। ওই প্রজ্ঞাপন জারির পরদিন থেকে চালকদের মাঝে টোল বৃদ্ধি করে জারি করা প্রজ্ঞাপনসহ নিজস্ব উদ্যোগে লিফলেট ছাপিয়ে প্রচারণা চালায় সেতু কর্তৃপক্ষ।

ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সেতু বিভাগের অধীন বঙ্গবন্ধু সেতুর জন্য অনুমোদিত যানবাহনের শ্রেণিবিন্যাস এবং টোলের হার মোটরসাইকেলের ক্ষেত্রে ৫০ টাকা, হাল্কা যানবাহনের মধ্যে কার/জিপ ৫৫০, মাইক্রো ও পিকআপ ৬০০, ছোট বাস (৩১ আসন বা এর কম) ৭৫০, বড় বাস (৩২ আসন বা এর বেশি) ১০০০, ছোট ট্রাক (৫ টন) ১০০০, মাঝারি ট্রাক (৫ টন থেকে ৮ টন) ১২৫০, মাঝারি ট্রাক (৮ টন থেকে ১১ টন) ১৬০০, ট্রাক (৩ এক্সেল) ২০০০, ট্রেইলার (৪ এক্সেল) ৩০০০, ট্রেইলার (৪ এক্সেলের অধিক) ৪০০০ টাকা। এছাড়া সেতুর ওপর দিয়ে ট্রেন চলাচলের জন্য প্রতি বছর এক কোটি টাকার টোল আদায়ের সিদ্ধান্ত হয়।

এরও আগে ২০১১ সালে বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে যানবাহন চলাচলে নতুন টোল ধার্য করা হয়। মোটরসাইকেলে ৪০ টাকা, হালকা যানবাহন (কার, জিপ) ৫০০, ছোট বাস ৬৫০, বড় বাস ৯০০, ছোট ট্রাক ৮৫০, মাঝারি ট্রাক ১১০০, বড় ট্রাক ১২৫০ থেকে ১৪০০ টাকা নির্ধারণ হয়।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.