সোমবার, মে ২৭, ২০২৪
Homeটাঙ্গাইল জেলাঘাটাইলঘাটাইলে বাল্যবিবাহ অনুষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১৭ জনের ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা...

ঘাটাইলে বাল্যবিবাহ অনুষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১৭ জনের ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা

ঘাটাইলে বাল্যবিবাহ অনুষ্ঠানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে বর সহ ১৭ জনকে জরিমানা করা হয়েছে। শুক্রবার দিবাগত রাতে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীন এ রায় দেন। ঘাটাইল থানার পুলিশ ও এলকাবাসী জানায়, গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাতে ব্রাক্ষ্মনশাসন খাদিজা আছিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী উপজেলা দিগড় ইউনিয়নের ধোপাজানি গ্রামের হেলাল উদ্দিনের কিশোরী মেয়ে হেলেনা খাতুনের (১৪) বিয়ের আয়োজন করে। বর একই উপজেলার নরজনা গ্রামের মৃত আরশেদ আলীর ছেলে আশরাফুল ইসলাম (২২)। বিয়ের সকল আয়োজন সম্পন্ন করার পর বর ও কনে পক্ষের আমন্ত্রিত অতিথীরা উপস্থিত হন ।গোপন সংবাদ পেয়ে বিয়ে সম্পাদনের অনুষ্ঠানের সময় বিয়ে বাড়িতে পুলিশ নিয়ে গিয়ে উপস্থিত হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্যোট আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীন । তাৎক্ষনিক বিয়ে বাড়ি থেকে কনের বাবা ও বর সহ উভয় পক্ষের ১৭ জনকে আটক করে ঘাটাইল থানার পুলিশ। পরে কনের বাবা হেলাল উদ্দিনকে ৪০ হাজার টাকা ও বরকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। চার জনকে ১০ হাজার টাকা করে এবং বাকী সকলে ৫ হাজার টাকা করে মোট ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় । এরা হচ্ছে, শাহজাহান কবীর (৫০), মোঃ রাজিব(২৮),আঃ হাদিদ(৬০),শিউলী বেগম(৩৬),বুলবুলি বেগম(৩৫), আল আমিন(১৯),শাহিদা বেগম(৩৫), বাদশা মিয়া(৬০), আবু হানিফ(২০), আবু সাইদ(৪৫), সুমন(২০), জহুরুল ইসলাম(২০), আজিজুল হাকিম(৩৫), কনের পিতা হেলাল উদ্দিন(৪৫), বর আশরাফুল ইসলাম(২২),শামীম মিয়া(২৫), মিজানুল ইসলাম(১৯),ও আ. জলিল (৪৫)। এদের সকলের বাড়ি ঘাটাইল উপজেলার ধোপাজানি ও নরজনা গ্রামে। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীন জানান, বাল্যবিবাহ রোধে সচেতনতা সৃষ্টির জন্যই এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। যাতে করে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধের প্রভাব পরে।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -