রবিবার, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
Homeবিবিধটাঙ্গাইলের মধুপুর পীরগাছা রাবার বাগানের ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে মামলা

টাঙ্গাইলের মধুপুর পীরগাছা রাবার বাগানের ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে মামলা

নিউজ টাঙ্গাইল ডেস্ক : বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নায়ন কর্পোরেশনের টাঙ্গাইলের মধুপুর পীরগাছা রাবার বাগানের ব্যবস্থাপক মিয়া তোফায়েল আহম্মেদ সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সিনিয়র জুটিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মধুপুর থানা আমলী আদালতে সি,আর ৪০০/২০১৭ ইং একটি মামলা হয়েছে। মামলার বিবরণ থেকে জানাযায়, মধুপুর উপজেলার পীরগাছা মমিনপুর গ্রামের মৃত মহির উদ্দিন মুন্সীর নামে এস এ খতিয়ান ৪৪০নং দাগ ২৪৬ নং দাগের ৬৭০শতাংশ জমির মালিক থাকা অবস্থায় তিনি মুত্যু বরন করিলে তাহার পুত্র মো: আ: রাজ্জাক পিতার মৃত্যুও পর হতে পৈত্তিক সূথে পাওয়া সম্পতির মালিক হইয়া ভোগ দখল করে উক্ত জমির মধ্য আনারস,কলা, পেপে,আদাসহ নানা ফসল চাষাবাদ করে আসছে।

এমন অবস্থায় উক্ত জমি বরেন দাবি করে ধনবাড়ী উপজেলার মমিনপুর গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে আশাফ আলী (৫৮),উখারিয়াবাড়ী গ্রামের মৃত হবিবুর রহমানের ছেলে বজলুর রহমান (৫৪) আফতাব হোসেন (৫৯), মধুপুর উপজেলার তৈনিন্দ্র মারাক এর ছেলে লোকাস মারাক, মিলে বাদী আ: রাজ্জাক এর জমি বেদখলের চেষ্ঠা করে। বিষয়টি নিয়ে আ: বাদী হয়ে টাঙ্গাইল কোর্টে ১৪৪ ধারা একটি মামলা করেন। মামলাটি মধুপুর থানা পুলিশ শান্তি বজায় রাখার জন্যূ উভয় পক্ষ কে নির্ষেধাকা জারি করেন। মামলার খবর শুনে উক্ত আসামী গনসহ পীরগাছা রাবার বাগানের ব্যবস্থাপক মিয়া তোফায়েল আহম্মেদ (৫৫) এর নির্দেশে কোমে উক্ত আসামী গনসহ মধুপুর উপজেলার চাপাইদ আংগালিয়া পাড়া গ্রামের মৃত্যু মুন্নাফ এর ছেলে ওমর ফারুক (৩৫), এই উপজেলার কুড়াগাছা গ্রামের হাজী ওমর আলীর ছেলে মনি (৩৮), টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়া গ্রামের মৃত আলতাফ হোসেন এর ছেলে আফতাব হোসেন (৫৯)সহ মিলে গত ১ ডিসেম্বর সার দিন আ; রাজ্জাকের ১২ বিগা জমির সকল শশ্যসহ গাছ পালা কেটে নিযে যায়। এতে আ: রাজ্জাকের ১৬ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়ে বলে আ:রাজ্জাক অভিযোগ করে মামলা করেন।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নায়ন কর্পোরেশনের টাংগাইলের মধুপুর পীরগাছা রাবার বাগানের ব্যবস্থাপক মিয়া তোফায়েল আহম্মেদ এর সাথে কথা হলে তিনি সাংবাতিকদেও জানান, আমরা রাবার বাগানের ভিতরে অনেক জমিই এলাকার বিভিন্ন লোকদের কাছে সমঝতার মাধ্যমে কলা,আনারস,আদা,ও পেপে সহ নানা ফসল চাষাবাদ করার জন্য দিয়েছি। কিন্তু বাগানের বাহিওে থাকলের উক্ত জমির আশে পাশে জমি আমাদেরও বন্ধবস্তোর মাধ্যমে চাষাবাদ করলেও তিনি (আ:রাজ্জাক) আমাদের সাথে কোন ধরনের বন্ধবস্তো না কওে কার পৈত্রিক সম্পত্তি দাবী করে আমাদেও বিরুদ্ধে মামলা করেছে। যা সম্পন সঠিক না।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

- Advertisement -
- Advertisement -