ব্রেকিং নিউজ :
ছবি: সংগৃহীত।

টাঙ্গাইলে বিড়ি নিয়ে তর্কে কাঁচির কোপে হাত হারালেন ধান কাটা শ্রমিক, আটক ৬

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে বিড়ি চাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই শ্রমিকের ধারালো কাঁচির কোপে ডান সেলিম নামে অপর এক শ্রমিকের হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার ডুবাইল ইউনিয়নের বর্ণি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার (১৩ মে) দেলদুয়ার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাজ্জাদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, বর্ণি গ্রামের শফিকুল ইসলাম নামে এক কৃষক তার জমির ধান কাটতে সকালে বিভিন্ন অঞ্চলের ৯ জন শ্রমিক কাজে নেন। পরে তারা জমিতে ধান কাটতে যান।

ধান কাটা অবস্থায় অন্য জমিতে কাজ করতে আসা বর্ণি গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে সেলিম নামে এক শ্রমিক শফিকুল কাজে আনা শ্রমিকদের কাছে বিড়ি চায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে তর্কবিতর্ক হয়।

একপর্যায়ে শ্রমিক মাসুদ রানা ও আব্দুল লতিফ ধান কাটা কাচি দিয়ে সেলিমের ডান হাত বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এ খবরটি বর্ণি গ্রামে পৌঁছলে গ্রামের লোকজন শ্রমিকদের ঘেরাও করে মারধর শুরু করে।

এ অবস্থা দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৬ শ্রমিককে আটক করে। এ সময় জনরোষে পড়ে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়। পুলিশ ৬ শ্রমিককে আটক করলেও বাকি ৩ শ্রমিক পালিয়ে যায়।

আটক শ্রমিকরা হচ্ছেন- সিরাজগঞ্জ জেলার চৌহালী উপজেলার আব্দুল আজিজ মিয়ার ছেলে মাসুদ রানা (৩৭), একই উপজেলার আব্দুল আওয়াল মিয়ার ছেলে নূর আলম (২২), একই জেলার বেলকুচি উপজেলার মো. মজিদ সরকারের ছেলে আব্দুল লতিফ (৩০), একই এলাকার মো. ময়নাল মিয়ার ছেলে মো. সাহাব উদ্দিন (২৭), টাঙ্গাইল সদর থানার ভবানিপুর গ্রামের মো. আছান মিয়ার ছেলে মো. জাহিদুল ইসলাম (৩০), গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বেলকা নবাবগঞ্জ গ্রামের মোজাম্মেল মিয়ার ছেলে নুরুজ্জামান (২৫)।

এ ব্যাপারে দেলদুয়ার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, বিড়ি চাওয়া নিয়ে তর্কবিতর্কে বর্ণি গ্রামের সেলিম নামে এক শ্রমিকের ওপর বিভিন্ন অঞ্চল থেকে কাজ করতে আসা শ্রমিকরা হামলা চালায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৬ শ্রমিককে আটক করা হয় বাকি ৩ শ্রমিক পালিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় সেলিম নামে ওই শ্রমিকের ডান হাত প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ভিকটিমের বড় ভাই দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পরে আটককৃতদের আজ শুক্রবার (১৩ মে) সকালে টাঙ্গাইল কোর্টে পাঠানো হয়েছে।

নিউজ টাঙ্গাইলের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন - "নিউজ টাঙ্গাইল"র ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.